CSE-India


অধ্যায়- ৯

সদস্য মধ্যস্থ বিবাদ নিষ্পত্তি-

সমিতি ও সদস্য মধ্যের সমস্ত প্রকার বিতর্ক, অনুযোগ, দাবী, উভয় দলের আবেদন, এই সমস্ত সিদ্ধান্ত গ্রহনের জন্য সমিতির তরফ থেকে একটি উপসমিতি গড়ে তোলা হয়েছে যার নাম “মধ্যস্থতা/ সালিসি উপসমিতি”। কোন পক্ষ যদি সালিসি উপসমিতির দ্বারা অবমানিত হয় তবে ৭ দিনের মধ্যে সমিতির কাছে তা আবেদন করা যাবে এবং সেক্ষেত্রে সমিতির সিদ্ধান্তই হবে চূড়ান্ত। কোন ক্ষেত্রে যদি কোন সদস্য বা সদস্য দল তা অস্বীকার ও অমর্যাদা করে, সমিতির বা সালিসি উপ সমিতির কোন অনুরোধ অমান্য করে তবে সেক্ষেত্রে সমিতির বিধি নিয়ম অনুযায়ী “বিদায় আইন” বহাল করা হবে।

বিতর্ক সম্বন্ধীয়-

অধিবেশনের দিন দুপুর ২ টো –র পর সমিতিতে আর কোন আবেদন ও অভিযোগ পত্র জমা নেওয়া হয় না।

সদস্য সালিসির পারিশ্রমিক-

সদস্যর সালিসির জন্য পারিশ্রমিক অগ্রিম হিসেবে এবং অন্য ক্ষেত্রে সময় বিবেচনা করে সমিতি তা নির্ধারণ করে।
সালিসির জন্য আবেদন পত্র- ২৫ টাকা
সমিতির কাছে আবেদন পত্র- ১০০ টাকা
টি ডি প্রতি শেয়ার পরীক্ষার জন্য- ২৫ টাকা
কিন্তু হিসাব রক্ষণের ক্ষেত্রে একাধিক শুদ্ধ ও সহজ (কোন ভুল ভ্রান্তি ছাড়া) হিসাব লিপিবদ্ধ করা হয়। সেক্ষেত্রে সালিসি উপ সমিতি দ্বারা বিবেচিত কোন ভুল ধরা পড়লে প্রতি ভুলের জন্য ২৫ টাকা ধার্য হবে। এক্ষেত্রে সেই পক্ষ সমস্ত প্রকার খরচের জন্য দায়ী হবে।

স্থগিত সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা-

সমিতির কোন সদস্য যদি অন্য সদস্যের আচরনের বিরুদ্ধে দাবী করে অথবা কোন কারনেই যদি কোন সদস্য কে সন্দেহভাজক মনে করা হয় তবে অবশ্যই তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। বিচারপূর্বক রায় দানের আগে অবশ্যই দাবীর সমস্ত বিস্তারিত নিবন্ধিত পোস্টের মাধ্যমে সদস্যের নিবন্ধিত ঠিকানায় পাঠানো হবে। নিবন্ধিত পোস্টের ১৪ দিনের মধ্যে কোন প্রত্যুত্তর না পাওয়া গেলে বা প্রত্যুত্তর অসন্তোষজনক বিবেচিত হলে সমিতি ex-parte ধার্য করবে।

আবেদন-

যে কোন উপসমিতির কোন সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কোন আবেদন পত্র দাবী করলে ১০০ টাকা দেয়ক ধার্য হবে। আবেদন অনুমোদিত হলে তা ফেরত পাওয়া যাবে। কখন তদন্ত তদন্তকারীর অবহেলার জন্য অথবা সমর্থকের স্বার্থে বন্ধ হয়ে যেতে পারে তাই শুনানির পূর্বেই ১০০ টাকা জমা করতে হবে।

শেয়ার পরীক্ষা উপসমিতির ক্ষমতা-

(১) শেয়ার পরীক্ষার উপসমিতি নির্দিষ্ট উল্লিখিত বিষয়গুলি বিজ্ঞপ্তির অন্তর্ভুক্ত করে। বিজ্ঞপ্তির ভুল ভ্রান্তি প্রদর্শন করার সম্পূর্ণ ক্ষমতা শেয়ার পরীক্ষা উপসমিতির আছে। যদি কোন শেয়ার কোন রকম আপত্তিকর ত্রুটির জন্য ফেরত আসে তবে ফেরত আসার ২দিনের মধ্যে বিক্রেতাকে তা শেয়ার পরীক্ষা উপসমিতির কাছে পেশ করতে হবে, এক্ষেত্রে ক্রেতা পক্ষের কোন দায়িত্ব থাকবে না।
(২) কোন ক্ষেত্রে বিক্রেতা যদি শেয়ার পরীক্ষা উপসমিতির নির্দেশ অনুযায়ী নির্দিষ্ট বিলি করতে ব্যর্থ হয় তবে সেক্ষেত্রে অসদয়তার কাজটি বিক্রেতা দ্বারা সংঘটিত হলে বিক্রেতা ঐ সংশ্লিষ্ট ক্রেতা কে অথবা তা ক্রেতা দ্বারা সংঘটিত সংশ্লিষ্ট বিক্রেতা কে ২৫ টাকা জরিমানা দেবে।